1. tarekahmed884@gmail.com : adminsonali :
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০১:৫৬ অপরাহ্ন

মৌলভীবাজারে ঢিলেঢালা স্বাস্থ্যবিধি, করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী

  • Update Time : মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩১৭ Time View

দৈনিক মৌলভীবাজার সোনালী কণ্ঠ নিউজ ডট কম

মৌলভীবাজারে করোনা সংক্রমণের হার বেড়েছে। এক লাফে শনাক্তের হার ২৮-এ উঠেছে। দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে সংক্রমণের হার ১১ থেকে ২০–এর মধ্যে ওঠানামা করছিল। সবশেষ গত ২১ আগস্ট সর্বোচ্চ সংক্রমণের হার ছিল ২৭ দশমিক ২। এরপর থেকেই শনাক্তের হার ছিল নিম্নগামী। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের ধারণা, মাস্ক না পরা, স্বাস্থ্যবিধি মানতে উদাসীনতা, বেপরোয়া চলাচল ও মেলামেশার কারণে জেলায় ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে করোনার সংক্রমণ।

মঙ্গলবার জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের করোনার নিয়মিত প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

সকাল আটটা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় মৌলভীবাজারে নমুনা পরীক্ষায় আরও ২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে এসব নমুনা পরীক্ষা হয়। নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৮৯টি। শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ১। এই ২৫ জনের মধ্যে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নমুনা প্রদানকারী ব্যক্তিদের মধ্যে সদরে ১৫, শ্রীমঙ্গলে ৫, কমলগঞ্জে ৩ ও রাজনগরে ২ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনজন। সুস্থ হয়েছেন ৬৩ জন। সারা জেলায় মোট করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৭ হাজার ৮৮২। সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ৪৪২ জন। মারা গেছেন ৭২ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১১ জন। করোনা সন্দেহে হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৩ জন। গত বছরের ৪ এপ্রিল মৌলভীবাজার জেলার রাজনগরে করোনার উপসর্গ নিয়ে প্রথম এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। পরে তাঁর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তখন করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে ২০ শতাংশের মধ্যেই ছিল সংক্রমণের হার। ১ সেপ্টেম্বর শনাক্তের হার ছিল ১৭ দশমিক ৮। একইভাবে ২ সেপ্টেম্বর ১১ দশমিক ৯, ৩ সেপ্টেম্বর ২০ দশমিক ২, ৪ সেপ্টেম্বর ১৬ দশমিক ১, ৫ সেপ্টেম্বর ১৭ দশমিক ৬ এবং ৬ সেপ্টেম্বর ১৬ দশমিক ৭ শতাংশ ছিল শনাক্তের হার।

জেলা সিভিল সার্জন চিকিৎসক চৌধুরী জালাল উদ্দিন মুর্শেদ প্রথম আলোকে বলেন, ‘অবস্থা খারাপ। আবার সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে। সব সময় সচেতনতার কথা বলে আসছি। সতর্ক করছি। স্বাস্থ্যবিধি মানার কথা বলছি। কিন্তু কেউ মাস্ক পরতে চাইছে না। আজ দেখলাম, অনেকে মাস্ক ছাড়াই টিকা দিতে কেন্দ্রে চলে এসেছে। তরুণ-যুবকদের বেপরোয়া চলাচলের কারণে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছেন তাদের পরিবারের বয়স্কজন। সবাইকে সচেতন হতে হবে। মাস্ক পরতে হবে। উদাসীনতার সুযোগ নেই। মনে রাখতে হবে, করোনা এখনো যায়নি।’

 

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo  Open photo

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo  Open photo

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo  Open photo

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 SonaliKantha
Theme Customized By BreakingNews