1. tarekahmed884@gmail.com : adminsonali :
রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন
Title :
ভারতেও ইউরোপের মতো বিশ্ববিদ্যালয়ে দুবার শিক্ষার্থী ভর্তি টিসিবির জন্য ৫৩৭ কোটি টাকার মসুর ডাল ও সয়াবিন তেল কেনা হচ্ছে মে মাসে এসেছে ২১৪ কোটি ডলার প্রবাসী আয়, প্রবৃদ্ধি ৩৮ শতাংশ বাড়ল ডিম, আলু, পেঁয়াজের দাম সপ্তাহের শেষ দিনে সোনার দাম কমেছে ফিলিস্তিনি ব্যাংক বিচ্ছিন্ন করতে চায় ইসরায়েল, মানবিক সংকটের হুঁশিয়ারি মার্কিন অর্থমন্ত্রীর ভিকারুননিসা, মনিপুরের মতো নামী স্কুলও ফলে পিছিয়ে চাল, আলু, বিদ্যুৎ হবে অত্যাবশ্যকীয় পণ্য, বাদ সিগারেট, স্বীকৃতি নেই পানির এসএসসির ফল কীভাবে দেখবে শিক্ষার্থীরা, নিয়ম জানাল শিক্ষা বোর্ড ভারতের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে দেশে কমছে পেঁয়াজের দাম

৪২ থেকে ৫০–এ যেতে ১০ বল লাগিয়েই কি বেঙ্গালুরুকে হারিয়েছেন কোহলি

  • Update Time : মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল, ২০২৩
  • ২১৪ Time View

দৈনিক মৌলভীবাজার সোনালী কণ্ঠ নিউজ ডট কম

৪৪ বলে ৬১, স্ট্রাইক রেট ১৩৮.৬৩—মন্দ কী! আপাতদৃষ্টে মন্দ মনে না হলেও বিরাট কোহলির এই ইনিংসকে গত রাতে লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের কাছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হারের কারণ হিসেবে দেখছেন অনেকেই। এমনকি বেঙ্গালুরু অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসির ৪৬ বলে ৭৯ রানের ইনিংসকেও কাঠগড়ায় তুলছেন কেউ কেউ।

গত রাতে লক্ষ্ণৌর বিপক্ষে ঘরের মাঠে প্রথমে ব্যাট করে কোহলিরা তোলেন ২১২ রান। দিন শেষে স্কোরটা যথেষ্ট হয়নি কোহলিদের জন্য। রোমাঞ্চ ছড়িয়ে শেষ বলে লক্ষ্ণৌ ম্যাচটি জিতে নিয়েছে ১ উইকেটে।

আগে ব্যাট করা রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর রানটা আরও বেশি হতে পারত। রান বেশি না হওয়ার পেছনে এই দুটি ইনিংসকে কারণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। কেন? এই সময়ের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে প্রতিটা বলকেই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। যে চাহিদা মিটিয়ে খেলতে ব্যর্থ হয়েছেন দলের সর্বোচ্চ দুই রানসংগ্রাহক কোহলি ও ডু প্লেসি।

কাল ব্যাট হাতে দারুণ শুরু করেছিলেন কোহলি। পাওয়ার প্লের মধ্যেই করেন ৪২ রান। বেঙ্গালুরুর হয়ে ওপেন করতে নেমে আইপিএলে পাওয়ার প্লের মধ্যে এর আগে কখনোই তিনি এত রান করেননি। তবে প্রথম ২৫ বলে ৪২ রান করা কোহলি ফিফটি করেন ৩৫ বলে। অর্থাৎ ৪২ থেকে ৫০—এই ৮ রান করতে কোহলি খেলেছেন ১০ বল। নিজের ইনিংসের শেষ ১৫ বলে করেছেন মাত্র ১৬ রান। দলের রানের গতি কমতে থাকে সেই সময়।

পাওয়ার প্লেতে ৫৬ রান করা বেঙ্গালুরু পরের ৭ ওভারে তোলে মাত্র ৪৮ রান। ধারাভাষ্যকার সাইমন ডুল তো বলেই দিয়েছেন, কোহলি ব্যক্তিগত মাইলফলক ছোঁয়ার দিকেই মনোযোগ দিয়েছেন, ‘শুরুতে কোহলির ইনিংসের গতি ছিল ট্রেনের মতো। অনেক শট খেলছিল। তবে ৪২ থেকে ৫০ রানে যেতে কোহলি ১০ বল খেলেছে। মাইলফলকের কথা ভেবেছে। আমার মনে হয় না এখন আর খেলায় এসবের কোনো জায়গা আছে।’

অধিনায়ক ডু প্লেসি গতকাল খেলেছেন ৪৬ বলে ৭৯ রানের ইনিংস। এই ইনিংস খেলার পথে প্রথম ৩০ বলে তিনি করেছিলেন মাত্র ৩৩ রান। ক্রিকেট বিশ্লেষক ও ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে মনে করেন, প্রথমে নষ্ট করা এই বলগুলো আর ফিরে পাওয়া যায় না।

সঙ্গে ইনিংসের শেষের স্ট্রাইক রেটটাই যে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নয়, সে কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন হার্শা, ‘এই খেলাটাই বলে দেয় স্ট্রাইক রেট নিয়ে এত দিন আমরা কী আলোচনা করছি। কোহলি ৪৪ বলে ৬১ রান, তার স্ট্রাইক রেট ১৩৯, শেষ ১৫ বলে করেছিল ১৬ রান। ডু প্লেসি ৪৬ বলে ৭৯, স্ট্রাইক রেট ১৭২, তবে প্রথম ৩০ বলে করেছিল ৩৩ রান। এই বলগুলো আর ফিরে পাওয়া যায় না। আরসিবি জয়ের জন্য যথেষ্ট সংগ্রহ পায়নি। আর আলোচনাটা ইনিংস শেষ ব্যাটসম্যানের কত স্ট্রাইক রেট থাকল, তা নিয়ে নয়।’

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন

Open photo

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 SonaliKantha
Theme Customized By BreakingNews