1. tarekahmed884@gmail.com : adminsonali :
শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ০১:৫০ পূর্বাহ্ন
Title :

ভারতে সয়াবিন ও সূর্যমুখী তেলের আমদানি মূল্য কমেছে ৪৬-৫৭%

  • Update Time : রবিবার, ৭ মে, ২০২৩
  • ১৯১ Time View

দৈনিক মৌলভীবাজার সোনালী কণ্ঠ নিউজ ডট কম

গত এক বছরে ভারতের বাজারে আমদানি করা অপরিশোধিত সয়াবিন ও সূর্যমুখী তেলের দাম ৪৬ থেকে ৫৭ শতাংশ কমলেও পাইকারি বাজারে তার প্রতিফলন তেমন একটা দেখা যায়নি। ইকোনমিক টাইমসের তথ্যানুসারে, খুচরা ও পাইকারি বাজারে এই দুই ভোজ্যতেলের দাম কমেছে ১৬ থেকে ১৭ শতাংশ।

গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা শুরু করলে ইউক্রেনের রপ্তানি বন্ধ হয়ে যায়। এতে বিশ্বজুড়ে গম, সয়াবিন ও সূর্যমুখী তেলের মতো নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম অনেকটা বেড়ে যায়। তবে ইউক্রেন থেকে রপ্তানি আবার শুরু হলে দাম কমতে শুরু করে।

দেশটির সলভ্যান্ট এক্সট্র্যাকটর্স অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়ার (এসইএআই) তথ্য উদ্ধৃত করে ইকোনমিক টাইমস জানিয়েছে, এখন সূর্যমুখী তেলের আমদানি ব্যয় সয়াবিন ও পাম তেলের চেয়ে কম পড়ছে। অথচ এক বছর আগেই পরিস্থিতি ছিল একদম বিপরীত।

তথ্যানুসারে, গত শুক্রবার মুম্বাইয়ের আমদানিকারকদের হিসাবে প্রতি টন অপরিশোধিত সূর্যমুখী তেলের দাম ছিল ৯৯৫ ডলার; অপরিশোধিত পাম ও সয়াবিন তেলের দাম ছিল যথাক্রমে টনপ্রতি ১ হাজার ৫ ডলার ও ১ হাজার ৪৫ ডলার। এক বছর আগে অপরিশোধিত সূর্যমুখী তেলের দাম ছিল টনপ্রতি ২ হাজার ৩০০ ডলার।

এসইএআইর নির্বাহী পরিচালক বি ভি মেহতা ইকোনমিক টাইমসকে বলেন, ইউক্রেন আবার রপ্তানি শুরু করার পর সেখান থেকে বিপুল পরিমাণে সূর্যমুখী তেল আনা হয়েছে এবং এখনো তাদের কাছে বিপুল পরিমাণ তেল আছে। সে জন্য গত কয়েক মাসে সূর্যমুখী তেলের দাম কমেছে।

তবে ভারতের ক্রেতারা এখনো সেই মূল্যহ্রাসের সুফল পাচ্ছেন না। দেশটির বাজারে সূর্যমুখী ও সয়াবিনের দাম এখনো বেশি। ভোজ্যতেল খাতের বিভিন্ন সূত্রে ইকোনমিক টাইমস জানিয়েছে, দাম কমার সুফল পেতে আরও কিছুদিন লেগে যাবে; কারণ, এই তেল পরিশোধন, প্যাকেটজাত ও বিপণন করতে বেশ কিছুদিন সময় লেগে যায়।

এদিকে ভারতের খাদ্য মন্ত্রণালয় দেশটির ভোজ্যতেল কোম্পানিগুলোকে দাম কমানোর নির্দেশনা দিয়েছে। ইতিমধ্যে তারা কোম্পানিগুলোকে এ নিয়ে দুবার সতর্ক করেছে।

ইকোনমিক টাইমস জানিয়েছে, ভারতের খুচরা বাজারে সূর্যমুখী ও সয়াবিন তেলের দাম অতটা না কমলেও পাম তেলের দাম আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণভাবে অনেকটা কমেছে। অপরিশোধিত পাম তেলের আমদানি মূল্য ৪৮ শতাংশ কমেছে আর তার পাইকারি ও খুচরা মূল্য কমেছে ৩৭ থেকে ৩৮ শতাংশ।

এতে বাজারে বড় প্রভাব পড়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে, কারণ, ভারতের ভোজ্যতেলের বাজারে পাম তেলের হিস্যা প্রায় ৪০ শতাংশ।

এদিকে বাংলাদেশে সম্প্রতি ভোজ্যতেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। এখন থেকে ১ লিটারের বোতলজাত সয়াবিন তেল ১৯৯ টাকায় বিক্রি হবে। এত দিন এর দাম ছিল ১৮৭ টাকা। অর্থাৎ লিটারে ১২ টাকা বাড়ানো হয়েছে। এ ছাড়া ৫ লিটারের বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বেড়ে হয়েছে ৯৬০ টাকায়। এত দিন দাম ছিল ৯০৬ টাকা। এর মানে নতুন করে বেড়েছে ৫৪ টাকা।

অন্যদিকে খোলা সয়াবিনের দাম লিটারে ৯ টাকা বাড়ানো হয়েছে। এতে প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেলের নতুন দাম হচ্ছে ১৭৬ টাকা। এত দিন প্রতি লিটার বিক্রি হয়েছে ১৬৭ টাকায়। আর প্রতি লিটার খোলা পাম তেল বিক্রি হবে ১৩৫ টাকা করে।

বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo    Open photo
বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন
Open photo   Open photo

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 SonaliKantha
Theme Customized By BreakingNews