1. tarekahmed884@gmail.com : adminsonali :
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৬:৪০ অপরাহ্ন
Title :
ভারতেও ইউরোপের মতো বিশ্ববিদ্যালয়ে দুবার শিক্ষার্থী ভর্তি টিসিবির জন্য ৫৩৭ কোটি টাকার মসুর ডাল ও সয়াবিন তেল কেনা হচ্ছে মে মাসে এসেছে ২১৪ কোটি ডলার প্রবাসী আয়, প্রবৃদ্ধি ৩৮ শতাংশ বাড়ল ডিম, আলু, পেঁয়াজের দাম সপ্তাহের শেষ দিনে সোনার দাম কমেছে ফিলিস্তিনি ব্যাংক বিচ্ছিন্ন করতে চায় ইসরায়েল, মানবিক সংকটের হুঁশিয়ারি মার্কিন অর্থমন্ত্রীর ভিকারুননিসা, মনিপুরের মতো নামী স্কুলও ফলে পিছিয়ে চাল, আলু, বিদ্যুৎ হবে অত্যাবশ্যকীয় পণ্য, বাদ সিগারেট, স্বীকৃতি নেই পানির এসএসসির ফল কীভাবে দেখবে শিক্ষার্থীরা, নিয়ম জানাল শিক্ষা বোর্ড ভারতের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে দেশে কমছে পেঁয়াজের দাম

৫% প্রণোদনায় ব্যয় বছরে প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০২৩
  • ১৪০ Time View

দৈনিক মৌলভীবাজার সোনালী কণ্ঠ নিউজ ডট কম

সরকারি কর্মচারীদের বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি (ইনক্রিমেন্ট) হয় অর্থবছরের শুরু, অর্থাৎ ১ জুলাই থেকে। তবে এ বছরের জুলাই মাসে তাঁদের জন্য থাকছে বিশেষ সুখবর। ২০১৫ সালে ঘোষিত বেতনকাঠামো অনুযায়ী প্রতিবছর ৫ শতাংশ হারে যে বেতন বাড়ে, এবার তার সঙ্গে আরও মূল বেতনের ৫ শতাংশ প্রণোদনা যোগ হবে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, তাদের প্রাথমিক হিসাব অনুযায়ী প্রণোদনা দিতে রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বাড়তি ব্যয় হবে প্রায় চার হাজার কোটি টাকা। উল্লেখ্য, বর্তমানে সরকারি চাকরিজীবীর সংখ্যা ১৩ লাখ ৯৬ হাজার ৮১৮।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত রোববার জাতীয় সংসদে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর বক্তব্য দেওয়ার সময় সরকারি কর্মচারীদের জন্য ৫ শতাংশ হারে প্রণোদনা দেওয়ার কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পর গতকাল সোমবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগে যোগাযোগ করে জানা যায়, তারা এ বিষয়ে প্রাথমিক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে। এখন একটি সারসংক্ষেপ উপস্থাপন করা হবে অর্থমন্ত্রীর কাছে। এরপর তা অনুমোদনের জন্য যাবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে। জুলাইয়ের প্রথম দুই সপ্তাহের মধ্যেই সব কাজ শেষ হবে। সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার সব কর্মচারীর ক্ষেত্রেই বেতন বৃদ্ধি প্রযোজ্য হবে।

অর্থ বিভাগ সূত্র বলছে, নিয়মিত যে ৫ শতাংশ মূল বেতন বাড়ে, তার অনুপাতে বাড়িভাড়া ভাতাও বৃদ্ধি পায়। তবে প্রণোদনা বাবদ যে ৫ শতাংশ দেওয়া হবে, তা মূল বেতনে যোগ হবে না। মানে হলো এই অনুপাতে বাড়িভাড়া ভাতা বাড়বে না। শুধু থোক হিসেবে মূল বেতনের ৫ শতাংশ অর্থ পাবেন সরকারি চাকরিজীবীরা।

বিষয়টি নিয়ে জানতে গতকাল প্রথম আলোর পক্ষ থেকে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হয়। তাঁর কাছে প্রশ্ন ছিল, প্রণোদনা বাবদ মূল বেতনের ৫ শতাংশের অনুপাতে বাড়িভাড়াও বাড়বে কি না, যা বার্ষিক বেতন বৃদ্ধির ক্ষেত্রে হয়? জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘মাত্র তো নির্দেশনা পেলাম। খোঁজখবর নিয়ে এ বিষয়ে পরে কথা বলা যাবে।’

সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধির খবরে বাজারে জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যায়—এ বিষয়ে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘সরকারি কর্মচারীদের এমন কোনো বেতন বাড়ছে না যে জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাওয়াটা সংগত হবে।’

অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, প্রণোদনা এককালীন নয়; বরং প্রতি মাসের বেতনের সঙ্গেই তা পাবেন সরকারি চাকরিজীবীরা। জুলাইয়ের বেতনের সঙ্গেই বাড়তি প্রণোদনা দেওয়ার চেষ্টা থাকবে অর্থ বিভাগের। জুলাইয়ের মধ্যে প্রক্রিয়া শেষ না হলে তা আগস্টে গড়াবে। তবে বাড়তি বেতন কার্যকর হবে জুলাই থেকেই।

সরকারি কর্মচারীদের ১০ থেকে ২০ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা দেওয়া হবে, এমন একটা আলোচনা ছিল বাজেট ঘোষণার আগে। তবে অর্থমন্ত্রীর বাজেট বক্তব্যে এ বিষয়ে কিছু উঠে আসেনি। বাজেট উপস্থাপনের আগে গত ১৬ মে এক সংবাদ সম্মেলনে সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধির ইঙ্গিত দেন প্রধানমন্ত্রী নিজেই। তিনি বলেছিলেন, মূল্যস্ফীতির সঙ্গে সমন্বয় করে সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বৃদ্ধি করা হবে।

অর্থ বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি ৫ শতাংশ ও নতুন প্রণোদনা ৫ শতাংশ মিলিয়ে মূল্যস্ফীতি সমন্বয় হয়ে যায়।

সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অন ইকোনমিক মডেলিংয়ের (সানেম) নির্বাহী পরিচালক ও অর্থনীতিবিদ সেলিম রায়হান গতকাল প্রথম আলোকে বলেন, ‘মূল্যস্ফীতির চাপে সবাই পিষ্ট। নতুন ঘোষণার ফলে সরকারি কর্মচারীদের জন্য একটু দম হলো। ইতিবাচকভাবেই দেখছি। কিন্তু বাকি জনগণের জন্য কী হবে? বাজারে তো সবাই যায়।’

খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি, ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পরিবার বা ফ্যামিলি কার্ড ইত্যাদি তো আছে—এ তথ্য তুলে ধরলে সেলিম রায়হান বলেন, ‘তা আছে। কিন্তু সেটা দিয়ে তো আর পাঁচ থেকে সাত দিনের বেশি চলে না। সরকারের উচিত হবে দেশের সব মানুষের জন্য মূল্যস্ফীতি কমানোর ব্যবস্থা করা।’

২০১৫ সালের বেতন কমিশনের সুপারিশে বলা ছিল, সরকারি কর্মচারীদের বেতন প্রতিবছর ৫ শতাংশ হারে বাড়বে। অর্থ বিভাগের সূত্রগুলো বলছে, বর্তমানে প্রতিবছর ৫ শতাংশ বেতন সবার বাড়ে না। কারণ, এ বৃদ্ধি একটা পর্যায়ে গিয়ে থেমে যায়। আবার কারও বাড়ে ৪, কারও সাড়ে ৪ শতাংশ হারে। তাই সে ক্ষেত্রে সবার প্রতিবছর ৫ শতাংশ বেতন বৃদ্ধি পাচ্ছে, তা বলা যায় না।

বিদ্যমান বেতনকাঠামো অনুযায়ী সরকারি কর্মচারীদের বেতন-ভাতার ২০টি ধাপ (গ্রেড) রয়েছে। সর্বোচ্চ বা প্রথম ধাপের মূল বেতন নির্ধারিত ৭৮ হাজার টাকা। আর ২০তম ধাপের মূল বেতন ৮ হাজার ২৫০ টাকা। বার্ষিক স্বাভাবিক বেতন বৃদ্ধি বাদ দিলে প্রথম ধাপের সরকারি কর্মচারী এবার ৫ শতাংশ প্রণোদনা হিসেবে পাবেন ৩ হাজার ৯০০ টাকা। আর শেষ ধাপের সরকারি কর্মচারী পাবেন ৪১২ টাকা ৫০ পয়সা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 SonaliKantha
Theme Customized By BreakingNews